What's happening?

আজ হিমুর বিয়ে – হুমায়ূন আহমেদ

আজ হিমুর বিয়ে – হুমায়ূন আহমেদ

Your rating: 0
0 0 votes

বিবরণ

আজ হিমুর বিয়ে গ্রন্থটি হুমায়ূন আহমেদ এর লিখিত এবং অন্যপ্রকাশ প্রকাশনী কর্তৃক প্রকাশিত বাংলা উপন্যাস বিষয়ক জনপ্রিয় বই। আপনি আরেফিন ইবুকস (Arefin eBooks) এর মাধ্যমে আজ হিমুর বিয়ে PDF বইটি সহজেই পড়তেডাউনলোড করে সংগ্রহে রাখতে পারবেন।

বইয়ের বিবরণ

  • বইয়ের নামঃ আজ হিমুর বিয়ে
  • লেখকের নামঃ হুমায়ুন আহমেদ
  • প্রকাশকঃ অন্যপ্রকাশ
  • সাইজঃ ৯ এমবি
  • ভাষাঃ বাংলা (Bangla/Bengali)
  • মোট পাতাঃ ৯৫ টি
  • বইয়ের ধরণঃ উপন্যাস
  • সিরিজঃ হিমু (Himu #15)
  • ফরম্যাটঃ পিডিএফ (PDF)

আজ হিমুর বিয়ে বই এর রিভিউ

বই রিভিউ ১

মাজেদা খালা হিমুর বিয়ে ঠিক করেছেন, কনের নাম রেণু। রেণু একটি ড্রাগ এ্যাডিক্ট ছেলের সাথে প্রেম করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলো বলে তারাহুরো করে হিমুর সাথে বিয়ে দেয়ার ইচ্ছে। হিমুও তার স্বভাব মত এককথায় রাজি হয়ে যায়।

রেণুর বাবা আমেরিকান আর মা বাঙ্গালী। রেণুর মা-বাবার সাথে হিমুর খালু সাহেবের পরিচয় রয়েছে। রেণু যে ছেলেটিকে বিয়ে করতে চায় তার নাম তুর্য। তুর্যকে মাজেদা খালার বাড়ির সামনে থেকে পুলিশ ধরে নিয়ে যায়।  হিমু তার খালুর দামি গাড়ি নিয়ে খালুকে না বলে বেরিয়ে যায়।

একযায়গা থেকে হেরোইন যোগার করে হাজতে গিয়ে  তুর্যকে দিয়ে আসে। কিন্তু তুর্য  হেরোইনের নেশা করা ছেড়ে দেয়।  এদিকে রেণুর বাবাকে এয়ারপোট থেকে নিয়ে আসার সময় পুলিশ হিমুকে সহ থানায় নিয়ে যায়। সেখানে রেণুর বাবার সাথে তুর্যর কথা হয়। রেণুর বাবা তুর্যকে পছন্দ করেন। শেষ পর্যন্ত তুর্য আর রেণুর বিয়ে হয়, আর হিমু বসে থাকে থানায়।

বই রিভিউ ২

বইটা কিনেছি অনেকদিন। পড়বো, পড়বো বলে আর পড়া হয় নাহ।

এবার গ্রামের বাড়ি থেকে নিয়ে এসেছি পড়ার জন্য।  গ্রামের থেকে সরাসরি কলেজে বসন্ত বরণ অনুষ্ঠানে  গিয়েছিলাম। বাসায় আশার সময়  মনটা খারাপ ছিলো তাই ভাবলাম বইটা পড়ে দেখি যদি মনটা ভালো হয়ে যায়

তাই পড়া শুরু  করে দিলাম।অদ্ভুতভাবে সব পরিবর্তন।  বইটা এত ভালো লাগবে, ভাবতেও পারি নি।  হিমুকে হাস্যরসাত্মক জোকার লাগতেছিলো।  এমন মনে হচ্ছিলো আমি তার পাশে বসে সব দেখতেছি তার কথা বলার ধরনটা অনেক ভালো লেগেছে। আস্তে আস্তে ভালো লাগা বৃদ্ধি পেতে লাগলো।  বাসে বসে পড়তে পড়তে একা একাই প্রচুর হাসতেছিলাম।  আমি যে বাসে বসে আছি ভুলেই গিয়েছিলাম।

বইটা পড়ে যেমন ভালো লাগবে তেমন অনেক অনেক শিক্ষণীয় বস্তু আছে কয়েকটি শব্দ আছে। যা সবার ভালো লাগবে আশা করি।  আবার রেণুর ডায়েরির লেখাগুলোও অনেক মজাদার ছিলো। তবে সব চাইতে মজার ব্যাপার হলো হিমু এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কথোপকথন তারপর মাঝে মধ্যে অদ্ভুত সব ছন্দ, কবিতার অংশবিশেষ আরও মজাদার। বইটা যে কারো মন ভালো করে দিবে।

বইটা এত ভালো লেগেছে যে সামনে পরীক্ষা তাই সময় পাই না। তাই  সময়ের অভাবে  ক্লাসে বসেও এটা পড়ছি তবে সব মজার সাথে কষ্ট থাকবে এটাই নিয়ম।  প্রায় শেষ দিকে ধৈর্য ধরে রাখতে  না পেরে আগেই শেষের একটু অংশ পড়ে ফেলছি।  এতেই সব নষ্ট হয়ে গেলো।  অনেক কষ্ট পেয়েছি।  এমনটা ভেবেছি, কিন্তু আশা করি নি।

এমনটা হবার কারণ বুঝতে পেরেছি।  তবু অনেক কষ্ট লাগলো মোটামুটি বই পড়ি।কিন্তু রিভিউ লেখা হয়ে উঠেনি এটার রিভিউ লিখবোই ভেবে রেখেছিলাম কিন্তু আরও  পরে লিখতাম বাট শেষ অংশটা এখনি লিখতে বাধ্য করলো। বিশাল বড় একটা রিভিউ লিখার ইচ্ছা ছিলো।  কিন্তু শেষ অংশ সব নষ্ট করে দিলো  ভুল হলে মাফ করবেন সবাই।

বই রিভিউ ৩

মাজেদা খালা হিমুর বিয়ে ঠিক করেছেন, কনের নাম রেণু। রেণু একটি ড্রাগ এ্যাডিক্ট ছেলের সাথে প্রেম করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলো বলে তারাহুরো করে হিমুর সাথে বিয়ে দেয়ার ইচ্ছে।

হিমুও তার স্বভাব মত এককথায় রাজি হয়ে যায়।  রেণুর বাবা আমেরিকান আর মা বাঙ্গালী। রেণুর মা-বাবার সাথে হিমুর খালু সাহেবের পরিচয় রয়েছে। রেণু যে ছেলেটিকে বিয়ে করতে চায় তার নাম তুর্য। তুর্যকে মাজেদা খালার বাড়ির সামনে থেকে পুলিশ ধরে নিয়ে যায়।

হিমু তার খালুর দামি গাড়ি নিয়ে খালুকে না বলে বেরিয়ে যায়। একযায়গা থেকে হেরোইন যোগার করে হাজতে গিয়ে  তুর্যকে দিয়ে আসে। কিন্তু তুর্য  হেরোইনের নেশা করা ছেড়ে দেয়।  এদিকে রেণুর বাবাকে এয়ারপোট থেকে নিয়ে আসার সময় পুলিশ হিমুকে সহ থানায় নিয়ে যায়। সেখানে রেণুর বাবার সাথে তুর্যর কথা হয়।

রেণুর বাবা তুর্যকে পছন্দ করেন। শেষ পর্যন্ত তুর্য আর রেণুর বিয়ে হয়, আর হিমু বসে থাকে থানায়।  —– সমাপ্ত —–  পর্যবেক্ষণ : হিমু সাধারণত মোবাইল ব্যবহার  করে না, কিন্তু উপন্যাসে দেখা গেলো হিমুর একটি মোবাইল রয়েছে যেটা মাজেদা খালা সাময়িক ব্যবহারের জন্য হিমুকে দিয়েছেন।

বই রিভিউ ৪

এই বইটি হিমু সিরিজের একটি অন‍্যতম সেরা বই। রসিকতা, বিভ্রান্ত করা, এবং সবশেষ হিমুর সেই চলাফেরা এই বইয়ে তুলে ধরা হয়েছে।

শুরুতেই হিমুর মাজেদা খালা তাকে ফোন করে। হিমুর জন‍্য পাত্রী খুজে রেখেছে। অন‍্য কেউ হলে কিছুটা অবাক হতো কিন্তু হিমু অন‍্যদের মতো অবাক না  হয়ে বিয়ের জন‍্য রাজি হয়ে যায়।   কিন্তু পাত্রী বিয়ের জন‍্য কোনোমতেই রাজি ছিল না। সে অন‍্য একজনকে ভালোবাসে।  হিমু পাত্রীর সাথে সরাসরি দেখা করে এবং রসিকতা করে।

মাজেদা খালা পাত্রীকে তার ঘরে আটকে রাখে। আর হিমুকে একটা ফোন দেয়।  যাতে সবসময় হিমুর সাথে যোগাযোগ রাখতে পারে।   গল্পের শেষে হিমুর আর বিয়ে হয়নি। পাত্রীর সাথে তার প্রেমিকার বিয়ে হয়ে যায়।    আমার পড়া হিমু সিরিজের বইয়ের মধ্যে  এই বইটি সেরা।

কারন এইখানে অনেক ধরনের রসিকতা, এছাড়া শেষে যখন পাত্রীর সাথে তার প্রেমিকার বিয়ে হয়ে যায় তখনো হিমু দুঃখিত হওয়ার বদলে তাদের জন‍্য দোয়া করে।   আসলেই এইজন্যই মাঝে মাঝে  হিমু হতে ইচ্ছে হয়। এতকিছুর পরও শুধুমাত্র হিমু ই খুশি থাকতে পারে।     সবমিলিয়ে দারুন একটা বই।

এডমিন বার্তা : আপনি আরেফিন ইবুকস (Arefin eBooks) এ পাবেন সকল জনপ্রিয় দেশি বিদেশী লেখকদের বাংলা পিডিএফ (Bangla PDF) বই, খুব সহজেই ডাউনলোড করতে পারবেন অথবা অনলাইনে পড়তে পারবেন। আপনার পছন্দের বইটি আরেফিন ইবুকস (Arefin eBooks) এ পেতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার কোনো অভিযোগ বা পরামর্শ থাকলেও আমাদের জানান, আমরা আপনার পরামর্শকে শ্রদ্ধাভরে মূল্যায়ন করি।

Director

Director

Cast

সম্পর্কিত বই

আধার রাতের অতিথি PDF – সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
উঠোন পেরিয়ে দুই পা – হুমায়ূন আহমেদ
অবশেষে PDF – ইমরান মাহমুদ
তেতুল বনে জোছনা – হুমায়ূন আহমেদ
বাসর – হুমায়ূন আহমেদ
বৃষ্টি ও মেঘমালা – হুমায়ূন আহমেদ
মেমসাহেব – নিমাই ভট্টাচার্য
রাক্ষস খোক্কস এবং ভোক্কস – হুমায়ূন আহমেদ
অদ্ভুত সব গল্প – হুমায়ূন আহমেদ
হিমুর হাতে কয়েকটি নীল পদ্ম – হুমায়ূন আহমেদ
কিছু শৈশব – হুমায়ূন আহমেদ
সূর্যের দিন – হুমায়ূন আহমেদ

Leave a comment

Name *
Add a display name
Email *
Your email address will not be published